রূপচর্চা

রূপচর্চা
Sort By:  
চন্দন গুড়া
মূল্য: ১০০ গ্রাম 200 টাকা প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন ০১৭১৭০৬১৩০৯ ০১৯১৪৫৯৮৫৩২
৳200
মশুর ডালের গুড়া
মূল্য : প্রতি প্যাক ৬০ টাকা। যেকোন পরিমাণ অর্ডার করতে যোগাযোগ করুন ০১৭১৭০৬১৩০৯ ০১৯১৪৫৯৮৫৩২ মশুর ডালের গুড়া সামান্য গোলাপজল বা হলুদ ও পানি মিশিয়ে পেষ্ট করে ত্বকে মাখলে উজ্জলতা বাড়ে। রোদে পোড়া ভাব কমে। সম্পূর্ন অর্গানিক উপায়ে উৎপাদিত মশুর ডাল থেকে তৈরি করা হয় মশুর ডালের গুড়া।
৳60
যষ্টিমধু
মূল্য: ১০০ গ্রাম ১২০ টাকা প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন- ০১৭১৭০৬১৩০৯ ০১৯১৪৫৯৮৫৩২ যষ্টিমধু বহুবর্ষজীবী গুল্মজাতীয় উদ্ভিদ। এর কাণ্ড বহু শাখাবিশিষ্ট, তিন-চার ফুট লম্বা, সরল ও নরম হয়ে থাকে। এর পাতা দণ্ডের উভয় দিকে সমান্তরালভাবে বিন্যস্ত এবং দণ্ডের অগ্রভাগে একটি পাতা থাকে। এর পাতাগুলো ডিম্বাকৃতির, সবুজ ও মসৃণ। পুষ্পদণ্ডের উভয় দিকে হালকা গোলাপি বর্ণের ফুল ফোটে। এর প্রতিটি ফলে দুই-পাঁচটি বীজ থাকে। এর মূল বেশ মোটা, গোলাকার ও মিষ্টি স্বাদযুক্ত। যষ্টিমধুর প্রধান কার্যকর রাসায়নিক উপাদানটি হলো ট্রাইতারপিনয়েড স্যাপোনিন গ্লিসাইরিজিন (গ্লিসাইরিজিনিক অ্যাসিডের পটাশিয়াম ও ক্যালসিয়াম লবণের মিশ্রণ)। এ ছাড়াও এতে রয়েছে গ্লাবরানিন এ ও বি, গ্লিসাইরেটল, গ্ল্যাবরোলাইড, আইসোগ্ল্যারোলাইড নামে ট্রাইতারপিনয়েড স্যাপেনিন; ফরমোনোনেটিন, গ্ল্যাবরোন, নিওলিকুইরিটিন, হিসপা-গ্ল্যাবরিডিন এ ও বি নামে আইসোফাবন; হারনিয়ারিন, আম্বিলিফেরন নামক কৌমারিন এবং আনোসেরিন, এমাইরিন, স্টিগমাস্টেরল নামক ট্রাইতারপিন স্টেরল ইত্যাদি। বিভিন্ন রোগের চিকিৎসায় যষ্টিমধু ব্যবহারের ঐতিহ্য অনেক পুরাতন। আয়ুর্বেদিক শাস্ত্রে, পৃথিবীতে যত ওষুধ তৈরি হয়, তার অধিকাংশের মধ্যেই যষ্টিমধু দেওয়া হয়। উপকারিতা: ১. কাশি, গলাব্যথা, রক্তক্ষরণ বন্ধ করতেও যষ্টিমধুর তুলনা নেই। ২. যাঁরা এসিডিটিতে ভোগেন, তাঁরা ফুটানো পানিতে যষ্টিমধু ভিজিয়ে ঠাণ্ডা করে ওই পানির ভেতর মধু দিয়ে পান করুন, উপকার পাবেন। ৩. মৃগী রোগের ক্ষেত্রে যষ্টিমধু চূর্ণ এক বা দুই গ্রাম মাত্রায় নিয়ে আধাকাপ পরিমাণ পাকা চালকুমড়ায় রসের সাথে মিশিয়ে প্রতিদিন খেতে হবে । ৪. স্মৃতিশক্তি বাড়াতে দুধের সঙ্গে যষ্টিমধুর গুঁড়া মিশিয়ে পান করুন, স্মৃতিশক্তি বাড়বে। ৫. ত্বক উজ্জ্বল ও মসৃণ করতে যষ্টিমধু ও ঘি একত্রে মিশিয়ে ব্যবহার করুন। এছাড়া ত্বকের বলিরেখা, ব্রণ ও দাগ দূর করে। ৬. পুষ্টিহীনতা বা শরীরের বিপাক জনিত সমস্যার ফলে যারা কৃশতায় ভুগছেন, তাঁরা প্রতিদিন অল্প পরিমাণ যষ্টিমধু সেবন করলে উপকার পাবেন । ৭. যষ্টিমধু, তিলের তেল ও আমলকী একত্রে মিশিয়ে চুলে লাগালে চুল পড়া বন্ধ হয়, খুশকি থাকে না।
৳120
মেহেদী পাতার গুড়া
দাম-৮০ টাকা(১০০ গ্রাম) প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন- ০১৭১৭০৬১৩০৯ ০১৯১৪৫৯৮৫৩২ চুলের যত্নে মেহেদি প্রায় প্রতিটি মানুষই ব্যবহার করে থাকেন। আগের দিনে চুলের যত্নে বা চুলের রং করতে মেহেদিকে ব্যবহার করা হত। চুলের গোড়া মজবুত করা, চুলের রুক্ষতা দূর করা নতুন চুল গজানো থেকে শুরু করে চুলের নানা সম্যসা দূর করে থাকে মেহেদি। কিন্তু মেহেদি লাগানোর আগে কিছু নিয়ম আছে যা অবশ্যই পালনীয়। অনেক সময় এই নিয়ম না মানার কারণে মেহেদির সঠিক ফল পাওয়া সম্ভব হয় না। আসুন জেনে নিই চুলে মেহেদি লাগানোর কিছু টিপস। ১। মাথার তালুতে কোন ইনফেকশন থাকলে মাথার তালুতে কোন ইনফেকশন থাকলে বা অন্যকোন সমস্যা থাকলে মেহেদি লাগাবেন না। মেহেদি তালুর ইনফেকশন আরও বাড়িয়ে দিতে পারে। তাই এক দুই সপ্তাহ অপেক্ষা করুন। ইনফেকশন ভাল হলে তারপর মেহেদি লাগান। ২। চুল কালার করা থাকলে আপনি যদি চুল রং করে থাকেন, তবে মেহেদি লাগাবেন না। কেমিকাল রং এবং মেহেদি রং দুটি মিশে আপনার চুলের ক্ষতি করতে পারে। এমনকি চুল পড়া বেড়ে যেতে পারে। চুলে রং লাগানোর ৬ মাস পর মেহেদি লাগাবেন। ৩। ভ্যাসলিনের ব্যবহার চুলে মেহেদি লাগানোর সময় কপাল, কানের আশেপাশে মেহেদি লেগে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই কপালে, কানের আশেপাশে ভ্যাসলিন লাগিয়ে নিন। এতে করে এই অংশগুলোতে মেহেদি রং লাগবে না। ৪। লেবুর রসের ব্যবহার অনেকেই মেহেদির প্যাকে লেবুর রস ব্যবহার করে থাকে। কিন্তু মেহেদিতে লেবুর রস ব্যবহার করা উচিত নয়। লেবুর রসে অ্যাসিড আছে যা চুলকে শুষ্ক করে দেয়। লেবুর রসের পরিবর্তে আপনি চায়ের লিকার বা কফি ব্যবহার করতে পারেন। এটি মেহেদির রং আরও গাঢ় করবে। ৫। সময় দিন মেহেদি লাগিয়ে সাথে সাথে চুল ধুয়ে ফেলবেন না। কমপক্ষে ২ ঘন্টা অপেক্ষা করুন। এতে মেহেদির রং চুলে ভালভাবে বসবে। তাই হাতে সময় নিয়ে চুলে মেহেদি লাগান। ৬। চুল রুক্ষ করে তোলে অনেকেই বলে মেহেদি চুল রুক্ষ করে থাকে। হ্যাঁ আপনার মাথার তালু রুক্ষ হলে মেহেদি চুল রুক্ষ করে তুলবে। তাই মেহেদির প্যাকের সাথে তেল, টকদই ব্যবহার করুন। কিংবা মেহেদি লাগিয়ে শ্যাম্পু করে মাথায় তেল লাগান। টিপস: ১। মেহেদির পেস্ট ঘন করার জন্য এতে চিনি ব্যবহার করুন। ২। যেদিন মেহেদি দিবেন তার আগের দিন চুলে তেল দিন। এতে করে মেহেদি লাগানোর পর চুল আর রুক্ষ হয়ে যাবে না। ৩। গাঢ় রং পাওয়ার জন্য ফ্রেশ মেহেদি ব্যবহার করার চেষ্টা করুন। ২-৩ বার লাগানোর পর স্থায়ীভাবে চুল রং হবে। ৪। মেহেদির সাথে অতিরিক্ত উপাদান যোগ করবেন না। এটি চুলের উপকারের চেয়ে ক্ষতি করতে পারে বেশি। ৫। মেহেদি লাগানোর পর চুলে হেয়ার ক্যাপ ব্যবহার করুন। এতে চুল থেকে মেহেদি কাপড় বা গায়ে পড়বে না।
৳80
আমলকি গুড়া
১০০ গ্রাম প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন - ০১৭১৭০৬১৩০৯ ০১৯১৪৫৯৮৫৩২ আমলকিতে প্রচুর পরিমান ভিটামিন সি, ভিটামিন বি-১, বি-২, আয়রন, ক্যালসিয়াম, আমিষ এবং অন্যান্য খনিজ পদার্থ রয়েছে। এটা শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। পেটের কার্যাবলি স্বাভাবিক রাখে। আমলকি গুড়া তেলের সাথে মিশিয়ে চুলে দিলে নতুন চুল গজায়।
৳70
গোলাপ গুড়া
মূল্য: ১০০ গ্রাম 200 টাকা প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন - ০১৭১৭০৬১৩০৯ ০১৯১৪৫৯৮৫৩২
৳200
মেথি গুড়া
মাথার ত্বক সুস্থ রাখতে এবং চুল সিল্কি করতে, নতুন চুল গজাতে মেথিগুড়া ব্যবহার করা হয়। মেথি গুড়া মুখেও মাস্ক হিসাবে ব্যবহার করা হয়, যা ত্বক কোমল ও পরিস্কার করে। মূল্য: প্রতি প্যাক ৭০ টাকা। প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন- ০১৭১৭০৬১৩০৯ ০১৯১৪৫৯৮৫৩২
৳70
Per Page      1 - 7 of 7
  • 1